করোনা চিকিৎসায় বিল দেড় কোটি টাকা! দুঃস্থ রোগীকে ছেড়ে মানবিকতার নজির গড়ল হাসপাতাল

 দুবাই: একটা, দুটো টাকা নয়। দেড় কোটি টাকা মকুব করে দিল হাসপাতাল। এদেশে হলে এমন ঘটনা বিরলতম আখ্যা পেত। কিন্তু দুবাইয়ের হাসপাতালগুলোর নাকি এমন মহানুভবতার নজির আগেও রয়েছে। ৮০দিন চিকিৎসার পর একজন করোনা আক্রান্ত রুগীকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তুলল দুবাইয়ের একটি হাসপাতাল। বিল হল দেড় কোটি টাকা। কিন্তু দুস্থ রুগীর পক্ষে অতগুলো টাকা দেওয়া অসম্ভব। তাই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে সেই বিল মকুবের আবেদন করেছিলেন সেই রুগী। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁর আবেদনে সাড়া দিয়েছে। এমনকী সেই রুগীকে দশ হাজার টাকা দেওয়া হয়। আবার তাঁকে তেলেঙ্গানায় নিজের বাড়িতে ফেরার ব্যবস্থাও করে দেওয়া হয়।

তেলেঙ্গানার রাজেশ লিঙ্গীয়া বছর দুয়েক ধরে দুবাইতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। ২৩ এপ্রিল  তিনি অসুস্থ হয়ে দুবাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর তিনি করোনা টেস্টে পজিটিভ হন। তারপর আশি দিন ধরে তাঁর চিকিৎসা হয়। এরপর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁর হাতে ৭, ৬২,৫৫ দিরহাম (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় দেড় কোটি টাকা) বিল ধরিয়ে দেয়। এত টাকার বিল দেখে চক্ষু চড়কগাছ হয়ে যায় রাজেশের। এরপর তিনি গালফ সরকার প্রটেকসান সোসাইটির  প্রেসিডেন্ট গুন্দেলি নারাশিংমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কে মানবিকতার খাতিরে বিল মকুব করে দেওয়ার আবেদন করেন। সেই আবেদনে সাড়া দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এই ঘটনার কথা প্রকাশ পাওয়ার পরই অনেকে সেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গুণগান করছেন। অনেকেই বলছেন ভারতে হলে এমন ঘটনা সম্ভব ছিল না। কারণ এখানে বিল না মেটানোয় রুগীকে আটকে রাখার বহু নজির রয়েছে। দুবাইয়ের ভারতীয় দূতাবাসের তরফে রাজেশের বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করা হয়। তাঁকে ফ্লাইট টিকিট কেটে দেওয়া হয়। এছাড়া তাঁর হতে দশ হাজার টাকাও দেওয়া হয়। তেলেঙ্গানায় নিজের বাড়িতে ফিরেছেন রাজেশ।

You may like

COVID-19 Live Updates